বড়লেখামৌলভীবাজার

বড়লেখায় ভোক্তা অধিকারের অ’ভিযান, ৩৫০০ লিটার তেল মজুদের অ’ভিযোগে দোকান সিলগালা

টাইমস ডেস্কঃ বড়লেখায় অ’বৈধভাবে ৩৫০০ লিটার তেল মজুদ করায় সামছু এন্ড ব্রাদার্সের দোকান সিলগালা এবং এক তেলের ডিলারসহ চার ব্যবসা’প্রতিষ্ঠানকে ৫৬ হাজার টাকা জ’রিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

অ’বৈধভাবে মজুত রাখা, বোতলের গায়ে লেখা দামের চেয়ে বেশি দামে তেল বিক্রি করা, পাকা বিক্রয় রশিদ প্রদর্শন না করার অ’ভিযোগে এই জ’রিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জে’লা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আল আমিনের নেতৃত্বে বড়লেখা পৌরশহরে হাজীগঞ্জ বাজারে এ অ’ভিযান পরিচালিত হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ভোক্তা অধিদপ্তর মৌলভীবাজারের সমন্বয়ক আশরাফুল ইস’লাম। অ’ভিযানে রেব-৯ এর একটি দল সহায়তা করেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অ’ভিযানে বড়লেখা পৌর শহরের হাজীগঞ্জ বাজারের আড়তগলিতে মেসার্স সামছু এন্ড ব্রাদার্সের তেলের একটি গোদামে ৩৫০০ লিটার তেল অ’বৈধভাবে মজুত রাখা, বোতলের গায়ে লেখা দামের চেয়ে বেশি দামে তেল বিক্রি করা, পাকা বিক্রয় রশিদ প্রদর্শন না করার অ’ভিযোগে ৫০ হাজার টাকা জ’রিমানা করা হয়। পাশাপাশি দোকানটি সিলগালা এবং জ’ব্দ করা ৩৫০০ লিটার তেল খুচরা দোকানদারের কাছে তাৎক্ষণিক আগের দামে বিক্রি করা হয়েছে।

এছাড়া বেশি দামে তেল বিক্রির অ’ভিযোগে পৌর সুপার মা’র্কেট এলাকার ব্যবসায়ী এম’রান স্টোরকে ২ হাজার টাকা, শাহেদ ভেরাইটিজ স্টোরকে ২ হাজার টাকা এবং মা ট্রেডার্সে ২ হাজার টাকা জ’রিমানা করা হয়।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জে’লা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আল আমিন বলেন, বাজারের সকল ব্যবসায়ীকে পাকা মেমো তৈরি ও প্রদান এবং বিক্রয় মূল্য তালিকা রাখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তেলের সরবরাহ সঠিক থাকা এবং ভোক্তা পর্যায়ে ন্যায্য দামে তেল পৌঁছাতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের এ তদারকি কার্যক্রম চলমান থাকবে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!