আন্তর্জাতিক

বিয়ের আসরে পাত্রের মা’থায় হাত বোলাতেই নববধূর হাতে উঠে এলো নকল চুল! ভেঙে গেল বিয়ে

বরের মা’থায় চুল নেই বলে বিয়ের মঞ্চেই বিয়ে ভেঙে দিলেন পাত্রী। ঘটনাকে ঘিরে দু’পক্ষের মধ্যে হুলুস্থুল কা’ণ্ড লেগে যায়। পু’লিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও শেষমেশ বিয়ে মাঝপথে ছেড়েই চলে যেতে হয় পঙ্কজকে। ঘটনাটি ঘটেছে ভা’রতের উত্তরপ্রদেশের উন্নায়রে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার রাতে দিল্লি থেকে উন্নাওয়ের সফীপুরে বিয়ে করতে এসেছিলেন পঙ্কজ। পাত্রীর বাড়িতে জাঁকজমক করে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। মালাবদলের জন্য তৈরি করা হয়েছিল হাইড্রোলিক মঞ্চ। সেই মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন পাত্র-পাত্রী। মঞ্চটি ঘুরছিল, আর তাতে মালাবদলের পালাও চলছিল। মালাবদল শেষে দু’জনে মঞ্চ থেকে নামতেই হঠাৎ জ্ঞান হারান পঙ্কজ। এমন কা’ণ্ডে হুলুস্থুল পড়ে যায় বিয়েবাড়িতে। উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন পঙ্কজের নববিবাহিত স্ত্রী’ও।

খবরে আরও বলা হয়, পঙ্কজকে সুস্থ করতে যখন সকলেই ব্যস্ত, তার স্ত্রী’ও সেখানে আসেন। পঙ্কজের মা’থায় হাত বোলাতে থাকেন। কিন্তু তার পরের ঘটনার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না কেউ। পঙ্কজের স্ত্রী’ যখন তাকে সুস্থ করতে মা’থায় হাত বোলাচ্ছিলেন, হঠাৎই পঙ্কজের পরচুলা খুলে তার হাতে উঠে আসে। মুহূর্তেই পরিস্থিতি গরম হয়ে ওঠে।

স্বামীর মা’থায় টাক, এটা মেনে নিতে পারেননি স্ত্রী’। চি’ৎকার করে বলতে থাকেন এ বিয়ে তিনি ভেঙে দিতে চান। পাত্রীপক্ষের পক্ষ থেকে প্রতারণার অ’ভিযোগ তোলা হয়। তাদের অ’ভিযোগ, বিয়ে ঠিক করার সময় বিষয়টি লুকিয়ে গিয়েছিল পাত্রের পরিবার। তারপর অ’তিথিরাই পু’লিশে খবর দেয়। পু’লিশ এসে দু’পক্ষকে বোঝানোর চেষ্টা করে। কিন্তু পাত্রীকে তার সিদ্ধান্ত থেকে টলানো যায়নি।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!